ওজন কমাতে গোল্ডেন মিল্ক

শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭: আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় কয়েক শতাব্দী ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে গোল্ডেন মিল্ক। এর উপাদান হলো হলুদ, নারিকেলের দুধ এবং কখনো কখনো এতে যোগ করা হয় নারিকেল তেল। অল্প পরিমাণে গোলমরিচের গুঁড়ো যোগ করা হতে পারে, এতে হলুদের উপকারিতা বাড়ে। যোগ করা যেতে পারে অন্যান্য কিছু উপাদান। ঘুমাতে যাবার আগে এটি পান করলে ওজন কমানোসহ বেশ কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা পাবেন।

১ কাপ নারিকেল দুধ, আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, আধা চা চামচ আদা গুঁড়ো, আধা চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো, এক চা চামচ মধু, অল্প নারিকেল তেল নিন। সবগুলো উপাদান একটি জারে নিন। জারের মুখ বন্ধ করে ভালোভাবে ঝাঁকিয়ে নিন ১ মিনিট। এরপর এতে কিছু আইস কিউব দিয়ে ব্লেন্ড করে নিতে পারেন।

হলুদএকটি অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি মশলা। বেশকিছু রোগের বিপক্ষে লড়াই করে এটি। এসব রোগের মাঝে আছে ক্যান্সার এবং আলঝেইমারস। ইনফ্লামেশন কমায় বলে তা গ্যাস, পেট ফাঁপা এবং বদহজম কমাতেও সহায়ক। কিছু গবেষণায় দেখা গেছে তা ওজন কমাতে কাজে লাগে। এর পাশাপাশি সে অ্যান্টিডিপ্রেসেন্ট হিসেবেও দারুণ। তা মেজাজ ভালো করে, স্ট্রেস কমায়, ঘুম ভালো করে এবং মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখে।

নারিকেল দুধ হজমের জন্য উপকারী। এতে থাকা প্রাকৃতিক ইলেক্ট্রোলাইট এবং উপকারি ফ্যাট অন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখে। হলুদের মতোই এর অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি বৈশিষ্ট্য আছে এবং তা ওজন কমাতে সহায়ক। যারা ব্যায়াম করেন, তাদের মেদ ঝরাতে এবং পেশি গঠনে কাজে আসে নারিকেল দুধে থাকা ফ্যাটি এসিড।

নারিকেল তেলের আছে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য, তা পেট ভালো রাখতে কাজে আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes