বৈশাখী পাতে

চেনা দেশি খাবারে চমক থাকা চাই। সে জন্য চেনা কিছু খাবারের রান্নাতেও যোগ করা যায় নতুনত্ব। বাঙালির পছন্দের সে রকম কয়েকটি খাবারের রেসিপি দিয়েছেন শুভাগতা দেবাশীষ

কাঁচা আমে ছোট মাছের চচ্চড়ি

উপকরণ
মলা মাছ ২৫০ গ্রাম, কাঁচা আম ২টি (কুচি), দেশি পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ৭-৮টি, লবণ পরিমাণমতো, জিরা বাটা আধা চা-চামচ, রসুন বাটা আধা চা-চামচ, হলুদের গুঁড়া পরিমাণমতো ও সরিষার তেল ৪-৫ টেবিল চামচ।

প্রণালি
মলা মাছ ভালো করে কেটে, ধুয়ে হলুদ ও লবণ মাখিয়ে রাখুন। কড়াইয়ে পেঁয়াজ কুচি, লবণ, কাঁচা মরিচের ফালি, জিরা বাটা, রসুন বাটা ও সরিষার তেল দিয়ে মাখাতে হবে। অল্প পরিমাণ পানি দিয়ে হলুদ ও লবণ মাখানো মাছগুলো আলতো করে বিছিয়ে দিতে হবে। তারপর চুলায় কড়াই চাপিয়ে ১০ মিনিট ঢেকে রাখতে হবে। মাছ সেদ্ধ হয়ে এলে আমের কুচি দিয়ে ৫ মিনিট ঢেকে রেখে অল্প সরিষার তেল দিয়ে নামিয়ে রাখতে হবে।

বেগুন ভর্তা

উপকরণ
গোল বেগুন ২টি, হলুদের গুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, পেঁয়াজ বেরেস্তা ২ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ ভাজা ৪টি, আচারের তেল পরিমাণমতো ও বেগুন ভাজার জন্য সয়াবিন তেল পরিমাণমতো।

প্রণালি
প্রথমে বেগুন গোল করে কেটে হলুদ, লবণ, মরিচের গুঁড়া মাখিয়ে রাখতে হবে। তারপর তেলে ভাজতে হবে। তেল থেকে তুলে বেগুনের খোসা চারপাশ থেকে তুলে বেরেস্তা করা পেঁয়াজ, শুকনা মরিচ ও আচারের তেল ভালো করে মাখিয়ে পরিবেশন করুন। ইচ্ছামতো ধনেপাতা কুচি দেওয়া যেতে পারে।

সজনে, মিষ্টিকুমড়া ও করলার নিরামিষ

উপকরণ
সজনে ডাঁটা ৪টা, উচ্ছে বা করলা ৪টা, মিষ্টিকুমড়া ৬ টুকরা (লম্বা করে কাটা), সরিষা বাটা ২ টেবিল চামচ, সরিষার তেল পরিমাণমতো, হলুদ ও লবণ পরিমাণমতো, কাঁচা মরিচ ৬টি ও চিনি সামান্য পরিমাণ (ঐচ্ছিক)।

প্রণালি
সব সবজি লম্বা করে কেটে নিতে হবে। কড়াইয়ে তেল দিয়ে সবজিগুলো ভালো করে নাড়াচাড়া করে আধা সেদ্ধ করে নিন। পরে সরিষা বাটা দিয়ে কাঁচা মরিচের ফালি দিতে হবে। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে ঢেকে কষিয়ে নিন। নামানোর সময় ইচ্ছেমতো সামান্য পরিমাণে চিনি দেওয়া যেতে পারে।

মুড়িঘণ্ট

উপকরণ
মুগের ডাল ২৫০ গ্রাম, রুই মাছের মাথা একটি, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা আধা চা-চামচ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, তেজপাতা ১টি, আস্ত গরম মসলা ৩টি, হলুদের গুঁড়া, লবণ পরিমাণমতো, মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচ ৫টি, সয়াবিন তেল পরিমাণমতো ও ঘি ১ চা-চামচ।

প্রণালি
কড়াইয়ে তেল দিয়ে পেঁয়াজ দিতে হবে। পেঁয়াজ লাল হয়ে এলে আদা বাটা, রসুন বাটা, তেজপাতা, হলুদের গুঁড়া, মরিচের গুঁড়া, গরম মসলা দিয়ে কষাতে হবে। মাছের মাথা হলুদ ও লবণ দিয়ে ভেজে রাখুন। মসলা থেকে তেল ছাড়লে ভেজে রাখা মাছের মাথাগুলো দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষাতে হবে। ভাঙা মুগের ডাল ভিজিয়ে রাখুন। কষানো মাছের মাথার মধ্যে পরিমাণমতো পানি দিয়ে মুগ ডাল দিতে হবে। মুগ ডাল সেদ্ধ হয়ে একটু ঘন হয়ে এলে ঘি ও কাঁচা মরিচ দিয়ে নামিয়ে ফেলুন।

ডালের বড়ি দিয়ে রুই মাছ

উপকরণ
রুই মাছ ৫-৬ টুকরা, ডালের বড়ি ৮-১০টি, পেঁয়াজ বাটা ২ চা-চামচ, রসুন বাটা আধা চা-চামচ হলুদের গুঁড়া আধা চা-চামচ, মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, জিরা বাটা আধা চা-চামচ, সয়াবিন তেল পরিমাণমতো ও জিরার গুঁড়া পরিমাণমতো।

প্রণালি
মাছগুলো হলুদ, লবণ ও মরিচের গুঁড়া মাখিয়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। ডালের বড়ি হালকা করে ভেজে নিন। কড়াইয়ে তেল দিয়ে পেঁয়াজ বাটা, হলুদের গুঁড়া ও লবণ দিয়ে কষিয়ে নিন। তেল ছাড়লে পরিমাণমতো পানি দিতে হবে। ঝোল ফুটে উঠলে ডালের বড়ি দিয়ে ঢেকে রাখুন। কিছুক্ষণ পরে মাছ দিতে হবে। একটু পরে নামিয়ে নিন। নামানোর সময় হালকা জিরা ভেজে গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes