দীপিকার শাড়ি তৈরি করতে কত সময় লেগেছে!

0
12

এ যেন রূপকথার রাজকন্যা ও রাজকুমারের বিয়ে। দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিংয়ের বিয়ে রাজপরিবারের বিয়ে থেকে কোনো অংশে কম ছিল না। বিয়ের প্রতিটি অনুষ্ঠানে দীপবীরের পোশাক সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। তা সে দীপিকার বিয়ের লেহেঙ্গা হোক কিংবা রিসেপশনের শাড়ি। বলিউডের মাস্তানি গার্লের সঙ্গে পাল্লা দেন বলিউডের বাজিরাও। রণবীরের পোশাক থেকে জুতা সবার নজর কাড়ে। এবার উঠে এসেছে মুম্বাইয়ের রিসেপশনে দীপিকার সেই সাদা শাড়ির রহস্য।

রিসেপশন অনুষ্ঠানে রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনরিসেপশন অনুষ্ঠানে রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনমুম্বাইয়ের রিসেপশনে দীপিকা পাড়ুকোন আর রণবীর সিং রাজকীয় রূপে ধরা দেন। দীপিকার স্নিগ্ধ সৌন্দর্য এই রাতকে আরও মোহময়ী করে তোলে। এই বলিউড সুন্দরী যে সাদা শাড়ি পরেছেন, তা তৈরি করেন আবু জানি ও সন্দীপ খোসলা। এই দুই তারকা ডিজাইনারের শাড়ি পরে দীপিকা অনন্যা হয়ে ওঠেন, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। বলিউডের ‘পদ্মাবতী’র এই রাজকীয় রূপের গোপন রহস্য এবার ফাঁস হয়ে গেছে। দীপিকা যে শাড়ি পরেছেন, তার বুননের ভিডিও প্রকাশ্যে এসে গেছে। আবু জানি ও সন্দীপ খোসলা ইনস্টাগ্রামে ভিডিওটি পোস্ট করেছেন। ভিডিওতে দেখা গেছে, আলাদা ডিজাইনাররা কীভাবে এই শাড়িটি বানিয়েছেন।

রিসেপশন অনুষ্ঠানে রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনরিসেপশন অনুষ্ঠানে রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোনজানা গেছে, রিসেপশনে দীপিকা পাড়ুকোনের সেই সাদা শাড়িটি প্রস্তুত করতে ১৬ হাজার ঘণ্টা সময় লেগেছে। এই রাতে দীপিকা এই শাড়ির সঙ্গে মানানসই ভারী অলংকার পরেছেন। ডিজাইনারের বক্তব্য, দীপিকার রিসেপশনের রাজকীয় গয়না বানাতে অনেক সময় লেগেছিল। শোনা গেছে, এই রাতে বলিউডের মাস্তানি গার্লের শরীরে কয়েক কোটি রুপির অলংকার ছিল। এর আগে ‘পদ্মাবত’ ছবিতে দীপিকার রয়্যাল লুক নয় থেকে নব্বই—সবাইকে অবাক করেছে। এই ছবিতে তাঁর শরীরে ২০ কেজি ওজনের গয়না ছিল। দীপিকার সেই গয়নার মূল্য ১১ কোটি ৭৯ লাখ রুপি। বলিউডের পদ্মাবতীর অলংকার বানানোর দায়িত্বে ছিল তনিষ্ক। ২০০ জন কারিগর মিলে ৬০০ দিন ধরে সাবেকি গয়নাগুলো প্রস্তুত করেছেন। রিসেপশনের রাতে রণবীর রোহিত বহেলের ডিজাইন করা পোশাক পরেছেন। সাদার ওপর সোনালি কাজের শেরওয়ানিতে তাঁকে দারুণ মানিয়েছিল।

ইতালির লেক কেমোতে ধুমধাম করে বিয়ে করেছেন দুই বলিউড তারকা দীপিকা ও রণবীর। এরপর বেঙ্গালুরু ও মুম্বাইয়ে তাঁদের রিসেপশন হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here