Breaking News

স্পেনে বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মদিন উদ্‌যাপিত

যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আজ শনিবার স্পেনের মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু ‍দিবস উদ্‌যাপিত হয়েছে।

মাদ্রিদ দূতাবাস দিবসটি পালন উপলক্ষে দূতাবাস প্রাঙ্গণে একটি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে মাদ্রিদে বসবাসকারী বাংলাদেশের নাগরিকসহ দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী সপরিবার অংশ নেন।

মাদ্রিদে বসবাসরত বাংলাদেশি শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণও চিত্রাঙ্গন প্রতিজুগিতা ছিল অনুষ্টানের অন্যতম আয়োজন। দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়।বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিষ্টার ও দূতালয় প্রধান এম হারুণ আল রাশিদের পরিচালনায় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাধীনতা যুদ্ধে সকল শহীদ, জাতীয় চার নেতা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও সম্প্রতি নেপালে বিমান দূর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে ১মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয় কোরআন তেলোয়াতর মধ্য দিয়ে।সকাল ১২টায় রাজধানী মাদ্রিদে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস হলে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন দেশটিতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার। দিবসটির ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে রাষ্ট্রদূত প্রথমেই শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু তার জীবনকে উৎসর্গ করেছিলেন বাংলাদেশের মানুষকে সুখী-সমৃদ্ধ জীবন উপহার দিতে।

হাসান মাহমুদ খন্দকার, বঙ্গবন্ধুকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রষ্টা ও মুক্তির দূত হিসেবে উল্লেখ করে বাংলাদেশ রাষ্ট্র গঠনে বঙ্গবন্ধুর সাহসী নেতৃত্ব ও প্রত্যয়ী ভূমিকার কথা তুলে ধরেন। তিনি শিশু-কিশোরদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শে জীবন গড়ার ও পরবর্তীতে দেশের উন্নয়নে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রদূত প্রবাসী বাংলাদেশিদের উদ্দেশ্যে বলেন, যে স্বাধীন দেশ বঙ্গবন্ধু আমাদের উপহার দিয়েছেন এবং সারাবিশ্বে তার উন্মেষ ঘটিয়েছেন তা আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে চলেছে দূর্বার গতিতে। আজ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর সহজ উপায় হলো তার আদর্শকে মাথায় নিয়ে যে যার অবস্থানে থেকে দেশ এবং দেশের মানুষের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাওয়া।

রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ ,বঙ্গবন্ধুর অমূল্য অবদানকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। বাংলাদেশস্থ স্পেন দূতাবাসের সহযোগিতায় বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইটি স্প্যানিশ ভাষায় অনুদিত হয়েছে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার বলেন, বঙ্গবন্ধুকে জানার জন্য স্প্যানিশদের মধ্যে আগ্রহ দেখেছি এবং এ বইটি স্প্যানিশ ভাষায় অনুদিত হওয়ায় স্প্যানিশরা আরো গভীরভাবে বঙ্গবন্ধুকে জানতে পারবে।তিনি বলেন, আমাদের সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যে ভূমিকা রেখেছে; তা বিশ্ববাসী অবাক হয়েছে এবং সাধুবাদ জানিয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দেওয়া বাণীগুলো পড়ে শোনান দুতলায় প্রধান হারুল আল রাশিদ ,প্রথম সচিব (শ্রম )শরিফুল ইসলাম। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা বোরহান উদ্দিন, জাকির হোসাইন, জহিরুল ইসলাম নয়ন, আব্দুর রহমান, আব্দুল কায়ুম সেলিম, ফয়জুর রহমান বড় ভাই, এম ফয়সাল ইসলাম, আয়ুব আলী প্রমুখ।

পুরো অনুষ্টানের তত্ত্ববাদনে ছিলেন দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর নাভিদ সফিউল্লাহ।নাভিদ সফিউল্লাহ তাঁর বক্তব্যে সবাইকে স্বাগত জানিয়ে বঙ্গবন্ধুর জীবনসংগ্রাম, ত্যাগ ও কর্মজীবন সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শিশুদের ভালোবাসতেন, শিশুরাও বঙ্গবন্ধুকে আপন করে নিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes