ইতিহাসের বড় অচলাবস্থায় যুক্তরাষ্ট্র

0
18

সীমান্ত দেয়ালের বরাদ্দ পাওয়া নিয়ে গত ২১ ডিসেম্বর মধ্যরাতের পর থেকে শুরু হওয়া অচলাবস্থা শনিবারে এসে টানা ২২ দিনে পড়েছে।আর এর মাধ্যমেই যুক্তরাষ্ট্রের সরকার ব্যবস্থায় সৃষ্টি হওয়া অচলাবস্থা অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।এর আগে ১৯৯৫-৯৬ সালে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের আমলে সর্বোচ্চ ২১ দিন অচলাবস্থা বিরাজ করেছিল যুক্তরাষ্ট্রে।মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য দাবিকৃত ৫৭০ কোটি মার্কিন ডলার বরাদ্দ ছাড়া কোনো অর্থবাজেটে স্বাক্ষর করবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প।এর আগে শুক্রবার সরকারের অচলাবস্থার ২১ দিনের মাথায় জরুরি অবস্থা জারির হুমকির পর পরই যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ সীমান্তে স্টিলের দেয়াল নির্মাণের সার্বিক প্রস্তুতি শুরু করেছে মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ পেন্টাগন।

এ ব্যাপারে কর্মতৎপর হয়ে উঠেছে হোয়াইট হাউসে ট্রাম্পের প্রশাসনও। দেয়াল নির্মাণ নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের নাটকীয়তার মধ্যেই দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে যোগ না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ট্রাম্প। পেন্টাগন ও হোয়াইট হাউস কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে শুক্রবার এ খবর জানিয়েছে ইউএসএটুডে।

এজন্য কংগ্রেসকে এড়িয়েই দেয়াল নির্মাণে জরুরি অবস্থার পথে হাঁটতে চাচ্ছেন ট্রাম্প। অচলাবস্থার ২০তম দিন বৃহস্পতিবার ডোনাল্ড ট্রাম্প টেক্সাস সীমান্ত পরিদর্শন করেন।ট্রাম্প মূলত দেয়ালের জন্য অর্থ বরাদ্দ পেতেই নাছোড়বান্দা হয়ে আছেন। কিন্তু ডেমোক্র্যাটরা কোনো চুক্তিতে আসতে না চাইলে কংগ্রেসকে পাশ কাটিয়ে জরুরি অবস্থার ক্ষমতা ব্যবহারের হুমকি দেন ট্রাম্প।রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে পাল্টাপাল্টিতে ২২ ডিসেম্বর থেকে মার্কিন কেন্দ্রীয় সরকারের অসংখ্য বিভাগ ও সংস্থা অচল হয়ে আছে। জরুরি অবস্থা জারি করেই এ অবস্থা থেকে নিষ্কৃতি চান ট্রাম্প।

বুধবার মার্কিন সরকারের আংশিক অচলাবস্থা নিরসনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ডেমোক্র্যাট নেতাদের বৈঠক শুরুর কিছু সময়ের মধ্যেই ভণ্ডুল হয়ে গেছে।দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দ পেতে প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ও সিনেটের সংখ্যালঘু অংশের নেতা চাক শুমার এ অর্থ দিতে অস্বীকৃতি জানান।

এর পর পরই ডোনাল্ড ট্রাম্প ওই বৈঠক থেকে বেরিয়ে আসেন। তিনি পরে শীর্ষ দুই ডেমোক্র্যাট নেতার সঙ্গে বৈঠককে সময় নষ্ট হিসেবেও অভিহিত করেন।অর্থ বিল নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ডেমোক্র্যাটদের সমঝোতা না হওয়ায় ২২ দিন ধরে প্রায় ৮ লাখ সরকারি কর্মী বেতনহীন অবস্থায় রয়েছেন।বিক্ষুব্ধ কর্মীরা সড়কে নেমে তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করতে শুরু করেছেন। এদিন অনেক সরকারি কর্মী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের খালি ‘পে স্লিপ’র ছবি পোস্ট করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here