রাতের ঢাকায় ফুলের বাজার

0
27

ঘড়ির কাঁটায় তখন রাত ৩টা বেজে ৩০ মিনিট। রাজধানীর শাহবাগে শিশুপার্কের পাশে ফুলের বাজারে যশোর, সাভার, মানিকগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ফুল ভর্তি গাড়িগুলো আসতে শুরু করেছে। মধ্যরাতে সেইসব গাড়ি থেকে উপচে পড়া বাহারি ফুলের ঘ্রাণে পুরো এলাকার বাতাস যেন মৌ মৌ করছে। সকালেই বিভিন্ন এলাকার ফুল ব্যবসায়ীরা এখান থেকে পাইকারি দামে এসব ফুল কিনে নিয়ে যাবেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) ভোরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গাড়ি থেকে রাস্তার পাশেই বিভিন্ন রকমের ফুল নামানো হয়েছে। কেউ সেই ফুল দোকানে নিয়ে যাচ্ছে, কেউ ফুল সাজাচ্ছে, আবার কেউ ভালো ফুল ও নষ্ট ফুল আলাদা করছে। কেউবা ফুল সাজিয়ে বসে আছেন। সকালের আলো ফোটার আগেই কিছু কিছু ক্রেতাও চলে এসেছেন। তারা ঘুরে ঘুরে পছন্দের ফুল দেখছেন ও দাম-দর করছেন।

পাবনা থেকে ফুল কিনতে এসেছেন সাদ্দাম হোসেন। তিনি ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠান আছে। কিছুদিন আগে একটা কাজে ঢাকায় এসেছি। আবার শুনেছি, শাহবাগে ফুলের দাম কম পাওয়া যায় এবং ভালো ফুল পাওয়া যায়। তাই সকাল সকাল ফুল কিনতে চলে এসেছি। ফুল কিনে আজকের মধ্যেই বাড়ি চলে যাবো।’

ফুলের দাম কেমন- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ঘুরে ঘুরে ফুল দেখছি, এখনও দাম-দর করি নাই। ফুল ব্যবসায়ীরা গাড়ি থেকে ফুল নামা‌নো এবং সাজানোতে ব্যস্ত। তাদের সাজানো শেষ হলেই দাম-দর করে ফুল কিনে নিয়ে যাবো।’

শাহবাগের ফুল ব্যবসায়ী দ্বীন ইসলাম বৃহস্পতিবার সাভার থেকে শুধু গোলাপ ফুল নিয়ে এসেছেন। তিনি ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘সাভার থেকে গোলাপ ফুল নিয়ে এসেছি। পাইকারি দরে এক আটি গোলাপের দাম তিনশত থেকে সাড়ে তিনশত টাকা।’

ব্যবসা কেমন যাচ্ছে- জবাবে তিনি বলেন, ‘আগের মত ফুলের ব্যবসা করে মজা নেই। দাম মত ফুল বিক্রি করতে পারি না। বেশিরভাগ দিনই লসের মধ্যে থাকি।’

আরেক ফুল ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম সকাল সকাল ফুলে ফুলে দোকান সাজিয়ে ক্রেতার অপেক্ষায় বসে আছেন। তিনি ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘এখানে যত প্রকার ফুল দেখছেন সবই যশোর থেকে এসেছে। শুধু গোলাপ বাদে। আজকে যে গোলাপ ফুলটা এসেছে তা সাভার থেকে এসেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের এখানে পাইকারি দরে ফুল বিক্রি করা হয়। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ ফুল কিনকে এখানে আসেন। এমনকি ঢাকার বাইরে থেকেও অনেকেই আসে ফুল কিনতে।’

ফুলের দাম সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এক আঁটি রজনীগন্ধা বিক্রি হয় ৩০০ টাকায়। গাঁদা ফুলের মালা কিনতে হলে একসঙ্গে কিনতে হবে ২০‌টি মালা অর্থাৎ এক ঝুপা, দাম ৩০০ টাকার মতো পড়বে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিদেশের অনেক ফুল এখন দেশেই চাষ হয়। যেমন গ্লাডিওলাস ফুল বিদেশি। কিন্তু বর্তমানে বাংলাদেশেও চাষ হয়। এই ফুলের আ‌টি দাম ২০০ থেকে ৪০০ টাকার মধ্যে। শাপলার আ‌টির দাম ১০০ টাকা। তবে ক্রেতা দেখে দাম কম বেশি হয়। এছাড়াও আরও অনেক প্রকার ফল আজ এসেছে। তবে বাজার বসার পরে ফুলের দাম নির্ধারণ করা হবে।’

শাহবাগের আরেক ফুল ব্যবসায়ী সাজু ব্রেকিংনিউজকে বলেন, ‘সবেমাত্র ফুল এসেছে। এখনও ফুল সাজানো হয় নাই। ভালো ফুলগুলো বাছাই করা হয় নাই। তাই দামের বিষয়টা বলতে পারছি না। সব কাজ শেষ হলে তখন দাম নির্ধারণ করতে পারবো।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here