‘গোল্ডেন মনিরের’ বিরুদ্ধে ৩ মামলার প্রস্তুতি র‍্যাবের

0
13

অস্ত্র, মাদক ও বিপুল পরিমাণ স্বর্ণালঙ্কারসহ গ্রেফতার মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করবে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এর মধ্যে একটি মামলা হবে বিশেষ ক্ষমতা আইনে। বাকি দুটি অস্ত্র ও মাদক আইনে।

শনিবার (২১ নভেম্বর) দুপুরে র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ ব্রেকিংনিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, শুক্রবার রাত ১০টা থেকে রাজধানীর মেরুল বাড্ডায় গোল্ডেন মনিরের বাড়িতে অভিযান চালায় র‍্যাব। রাতভর অভিযানে ৬শ’ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, একটি বিদেশি পিস্তল ও নগদ এক কোটি ৯ লাখ টাকা জব্দ করা হয়। এছাড়া বিলাসবহুল পাঁচটি গাড়ি জব্দ করা হয়েছে। এসব অভিযোগে গোল্ডেন মনিরের বিরুদ্ধে র‍্যাব বাদী হয়ে তিনটি মামলা করবে। এরই মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

এদিকে গোল্ডেন মনিরকে গ্রেফতারের পর তাকে র‍্যাব-৩ কার্যালয়ে নেওয়া হয়েছে। সেখানে তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে থানায় হস্তান্তরের পর তাকে আদালতে তোলা হবে।

জানা যায়, ৯০ দশকে রাজধানীর গাউছিয়া মার্কেটে একটি কাপড়ের দোকানে সেলসম্যান হিসেবে কাজ করতেন মনির হোসেন। তারপর শুরু করেন ক্রোকারিজের ব্যবসা। এক পর্যায়ে স্বর্ণ চোরাচালানির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। এরপর বিদেশ থেকে অবৈধভাবে দেশে স্বর্ণ আনতেন তিনি। অবৈধভাবে উপার্জিত অর্থ দিয়ে মেরুল বাড্ডায় বিলাস বহুল ছয়তলা বাড়ি করেন। এছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় দুইশ’র বেশি প্লট এবং ৩০টির মতো ফ্লাট থাকার কথা স্বীকার করেছেন।

তবে, এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে মনিরের বড় ছেলে মো. রাফি হোসেন বলেন, ‘বাবা প্রায় চিকিৎসার জন্য দুবাই যান। আগামীকাল তার ফ্লাইট ছিল। এর আগেই র‍্যাব তাকে গ্রেফতার করে।’ তবে মনিরের শারীরিক সমস্যা সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেননি তার ছেলে রাফি।

রাফি তার বাবার (মনির) বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে বলেন, ‘আমার বাবা নির্দোষ। তিনি কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না। আমরা আইনগতভাবে সব মোকাবেলা করব। বাবার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ দেওয়া হচ্ছে সব ভিত্তিহীন। তিনি একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী। আমরা কোর্টে যাবো। সেখানেই প্রমাণ হবে বাবা দোষী কি-না। সম্পূর্ণ ভুল বোঝাবুঝির মাধ্যমেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here