ফেব্রুয়ারির মধ্যেই করোনাক্রান্ত হবে অর্ধেক ভারতীয়!

0
22

ভারতের ১৩০ কোটি জনগণের মধ্যে অন্তত অর্ধেকের আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সোমবার করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার দায়িত্বে থাকা কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্যোগে গঠিত কমিটির একজন সদস্য গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

ভারতে এ পর্যন্ত ৭৫ লাখ ৫০ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। সংক্রমণের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই দেশটির অবস্থান। বার্তাসংস্থা রয়টার্সের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝির পর থেকে ভারতে কভিড-১৯ এর সংক্রমণ হ্রাস পাচ্ছে। এখন সেখানে প্রতিদিন গড়ে ৬১ হাজার ৩৯০টি সংক্রমণ শনাক্ত হচ্ছে।

ভারতের কানপুরের ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট ফর টেকনোলজির অধ্যাপক ও কমিটির সদস্য মনীন্দ্র আগরওয়াল রয়টার্সকে বলেন, আমাদের গাণিতিক মডেলের অনুমান অনুযায়ী এখন পর্যন্ত মোট জনসংখ্যার প্রায় ৩০ শতাংশ করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। আগামী ফেব্রুয়ারির মধ্যেই এটি ৫০ শতাংশে পৌঁছে যেতে পারে।

কমিটির অনুমানে ভাইরাসের বর্তমান সংক্রমণ কেন্দ্রীয় সরকারের সেরোলজিক্যাল জরিপের তুলনায় অনেক বেশি। ওই জরিপ অনুযায়ী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জনসংখ্যার মাত্র ১৪ শতাংশ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিল। তবে আগরওয়াল আরও বলেন, সেরোলজিক্যাল জরিপে নমুনার আকার বেশ ছোট হওয়ায় সঠিকভাবে ফলাফল নাও পাওয়া যেতে পারে। পরিবর্তে ভাইরোলজিস্ট, বিজ্ঞানী ও অন্য বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে গঠিত এই কমিটি গাণিতিক মডেলের ওপর নির্ভর করেছে।

তিনি বলেন, আমরা একটি নতুন মডেল তৈরি করেছি এবং মডেলটি স্পষ্টভাবে শনাক্ত না হওয়া সংক্রমণগুলোও বিবেচনায় নেয়। এজন্য আমরা সংক্রমিত লোকদের দুই ভাগে ভাগ করতে পারি- শনাক্ত হওয়া ও শনাক্ত না হওয়া।

কমিটি বলছে, সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহারের মতো ব্যবস্থা যদি অবহেলা করা হয়, তবে এক মাসেই ২৬ লাখ সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে। বিশেষ করে চলতি মাসে ও নভেম্বরে যথাক্রমে দুর্গা পূজা ও দিওয়ালির মতো উৎসব রয়েছে। ভারতের বৃহৎ দুই ধর্মীয় উৎসবে মানুষ কতোটা স্বাস্থ্যবিধি মানবে তা নিয়ে এখনই সংশয় দেখা দিয়েছে।

গবেষকরা সতর্ক করে বলেছেন, ছুটির মৌসুম নিকটে আসার সঙ্গে সঙ্গে ভারতে সংক্রমণ বাড়তে পারে। খবর রয়টার্স।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here