৪ হাজার কর্মী ছাঁটাই করছে কোকা-কোলা

0
38

করোনার কারণে পুনর্গঠনমূলক কর্মসূচির আওতায় উত্তর আমেরিকায় চার হাজার কর্মী ছাঁটাই করতে যাচ্ছে কোকা-কোলা। শুক্রবার এক ঘোষণায় এ তথ্য নিশ্চিত করে বৈশ্বিক পানীয় জায়ান্টটি। কভিড-১৯ মহামারির কারণে দ্বিতীয় প্রান্তিকে বড় আকারের লোকসান গুনেছে কোকা-কোলা।

সংক্রমণ ঠেকাতে ক্রীড়া অনুষ্ঠান, থিয়েটার ও বিনোদনকেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকায় পানীয় বিক্রি কমেছে। এপ্রিল থেকে জুনে কোকা-কোলার নিট আয় ৩২ শতাংশ কমে ১৮০ কোটি ডলার এবং একই সময়ে বিক্রি ২৮ শতাংশ কমে ৭২০ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে।

কোকা-কোলা জানিয়েছে, তারা জুস, পানি, কোমল পানীয়সহ ১৭টি ব্যবসায় ইউনিট থেকে কার্যক্রম কমিয়ে নয়টি ইউনিটে নিয়ে আসতে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে কর্মী ছাঁটাইয়ের জন্য ৩৫ কোটি থেকে ৫৫ কোটি ডলার ব্যয়ের আশঙ্কা তাদের।

কোকা-কোলা এক বিবৃতিতে জানায়, কাঠামোগত পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় স্বেচ্ছায় চাকরি থেকে অব্যাহতির সুযোগ ঘোষণা করা হচ্ছে, যার আওতায় কর্মীরা বিশেষ আর্থিক প্যাকেজের জন্য বিবেচিত হবেন। প্রথমে এ কর্মসূচির আওতায় যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও পুয়ের্তো রিকোর চার হাজার কর্মীকে বর্ধিত সুবিধাসহ অব্যাহতি দেয়া হবে।

জোরপূর্বক ছাঁটাই এড়াতে অন্যান্য দেশের সঙ্গেও এ ধরনের চুক্তিতে পৌঁছানোর পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে কোকা-কোলা। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানায়নি মার্কিন পানীয় জায়ান্টটি।

করোনা ভাইরাস অনিশ্চয়তার কারণে দ্বিতীয় প্রান্তিকের আয়-ব্যয়ের উপাত্ত প্রকাশের সময় চলতি বছরের আয়ের পূর্বাভাস শেয়ার করেনি কোকা-কোলা।

তবে কভিড-১৯ পরিস্থিতির সঙ্গে সংগতি রেখে যে লাভ-লোকসানে প্রভাব পড়বে, সে বিষয়টি স্বীকার করেছেন কোকা-কোলার সিইও জেমস কুইন্সি।

তিনি বলেন, আমরা যদি দেখি ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আসতে শুরু করেছে তাহলে আগামী মাসগুলোয় বিক্রিতে চাঙ্গা ভাব দেখব। তবে আগামী দিনগুলোয়ও যে আংশিক কিংবা সম্পূর্ণ লকডাউন আসবে না, তার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিতে পারছি না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here