ভারত ভ্রমণে বাংলাদেশিরাই সেরা

0
7

ভারত ভ্রমণে বাংলাদেশিরাই সবচেয়ে বেশি এগিয়ে। ২০১৮ সালের শুরু থেকে পরবর্তী ১৫ মাসে ২৮ লাখ ৭৬ হাজার বাংলাদেশি ভারত ভ্রমণ করেছে। যা যেকোন দেশের নাগরিকদের তুলনায় বেশি। ভারত ভ্রমণের দিক থেকে বাংলাদেশের পরেই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের নারিকরা। তবে তাদের সংখ্যা বাংলাদেশের থেকে প্রায় ১০ লাখ কম।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। এই একই সময়ে ভারত থেকে ডিপোর্ট বা বিতাড়িত হওয়ার তালিকায়ও বাংলাদেশের নাগরিকরা দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৩৭ লাখ ৩০ হাজার ২৮২ জন বিদেশি ভারত ভ্রমণ করেছে। এর মধ্যে বাংলাদেশি সবচেয়ে বেশি। এরপরই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, দেশটির ১৮ লাখ ৬৩ হাজার ২৭৮ জন নাগরিক।

এ ছাড়া যুক্তরাজ্যের ১৩ লাখ ৬৯ হাজার ৫৪৮ জন, কানাডার ৪ লাখ ৭৮ হাজার ২২৮ জন, শ্রীলঙ্কার ৪ লাখ ৫১ হাজার ৭৩৬ জন, অস্ট্রেলিয়ার ৪ লাখ ৪৪ হাজার ৩৩ জন, মালয়েশিয়ার ৪ লাখ ১১ হাজার ৫০ জন, রাশিয়ার ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮৩ জন, চীনের ৩ লাখ ৭৫ হাজার ৪৪৯ জন এবং জার্মানির ৩ লাখ ৬০ হাজার ৮৪৩ জন। ভারতে মোট বিদেশি পর্যটকের ৬৫ দশমিক ৬১ শতাংশ এসেছে এ ১০টি দেশ থেকে।

প্রতিবেদনটির তথ্য অনুযায়ী, একই সময়ে ভারত থেকে মোট ১ হাজার ৯৮২ জন বিদেশি নাগরিককে ডিপোর্ট বা বিতাড়িত করা হয়। এদের মধ্যে ৪৯১ জন বাংলাদেশি। ভারত থেকে সবচেয়ে ডিপোর্ট হয়েছে নাইজেরিয়ার নাগরিক। তাদের সংখ্যা ৮৪৭ জন। এ ছাড়া ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৯ সালের মার্চ পর্যন্ত আর সোমালিয়ার ১২৪ জনকে বিতাড়িত করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৪ সালে ভারত ভ্রমণে দ্বিতীয় এবং ২০১৩ ও ২০১২ সালে তৃতীয় অবস্থানে ছিল বাংলাদেশিরা। পর্যটন সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ভারত সম্প্রতি ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করায় আগের তুলনায় অনেক বেশি বাংলাদেশি দেশটি ভ্রমণ করছেন।

উল্লেখ্য, বর্তমানে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, বরিশাল, রংপুরের মতো মূল শহরগুলো ছাড়াও দেশে মোট ১৫টি স্থান থেকে ভিসা আবেদন গ্রহণ করেছে ভারত। পাশাপাশি ভারতীয় ভিসা আবেদনে দালাল চক্রের দৌরাত্ম কমিয়েছে।

ভিসা আবেদনের জন্য বিভিন্ন শ্রেণিতে প্রার্থীদের ভাগ করে দিয়েছে ভারতীয় হাইকমিশন। সূত্র বলছে, মূলত চিকিৎসা সেবা ও ব্যবসা-বাণিজ্যের কাজেই বাংলাদেশিরা বেশি ভারতে ভ্রমণ করেন। এ ছাড়াও পড়াশোনা, বন্ধু বা স্বজনের সাথে দেখা করাসহ ভ্রমণের সব ক্যাটাগরিতেই ভারতে বাংলাদেশিদের যাতায়াত বাড়ছে।

২০১৫ সালের প্রথম দশ মাসে (জানুয়ারি-অক্টোবর) দেশটিতে বিদেশি পর্যটক ভ্রমণ করেছেন ৬২ লাখ ৮০ হাজার। আর বর্তমানে পর্যটকের সংখ্যা ভারতে কোটি ছাড়িয়েছে। আর ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৯ সালের মার্চ পর্যন্ত মোট পর্যটকের প্রায় ২১ শতাংশ।

২০১৪ সালে ভারতে বিদেশি ভ্রমণকারীর সংখ্যা ছিল ৭৬ লাখ ৮০ হাজার। ওই বছর দেশটিতে ভ্রমণকারী বিদেশি পর্যটকের ক্ষেত্রে বাংলাদেশি ভ্রমণকারীদের অবস্থান ছিল দ্বিতীয়; যা মোট পর্যটকের ১২ দশমিক ২৭ শতাংশ। সে সময় ১৪ দশমিক ৫৭ শতাংশ ভ্রমণকারী নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান ছিল প্রথম। আর তৃতীয় অবস্থানে থাকা যুক্তরাজ্যের ভ্রমণকারী ছিল ১০ দশমিক ৯২ শতাংশ।

২০১৩ সালে ভারতে বিদেশি ভ্রমণকারীর সংখ্যা ছিল ৬৯ লাখ ৭০ হাজার। এর মধ্যে ১৫ দশমিক ৫৮ শতাংশ যুক্তরাষ্ট্রের, ১১ দশমিক ৬২ শতাংশ যুক্তরাজ্যের এবং ৭ দশমিক ৫৩ শতাংশ ছিল বাংলাদেশ থেকে ভ্রমণকরা পর্যটক। এছাড়া ২০১২ সালে ৬৫ লাখ ৮০ হাজার বিদেশি ভ্রমণকারীর মধ্যে ৭ দশমিক ৪ শতাংশ এবং ২০১১ সালে ৬৩ লাখ ১০ হাজার বিদেশি ভ্রমণকারীর মধ্যে বাংলাদেশি ৬ দশমিক ৩৪ শতাংশ বাংলাদেশি পর্যটক ভারত ভ্রমণ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here