পুঁ‌জিবাজা‌রে ব্যাং‌কের বি‌নি‌য়োগসীমার শর্ত শিথিল

0
36

পুঁজিবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ বাড়াতে ব্যাংক এবং নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর এক্সপোজার শিথিল করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ফলে এখন থেকে পুঁজিবাজারে ব্যাংকের (একক ও সমন্বিত) বিনিয়োগ হিসাবায়নের ক্ষেত্রে নন-লিস্টেড কোম্পানির অর্থাৎ পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত নয় এমন প্রতিষ্ঠানের ইক্যুইটি শেয়ার, নন-কনভার্টেবল প্রিফারেন্স শেয়ার, নন-কনভার্টেবল বন্ড, ডিবেঞ্চার, ওপেন-ইন্ড মিউচ্যুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগকে ব্যাংকের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ (ক্যাপিট্যাল মার্কেট এক্সপোজার) হিসেবে গণ্য করা হবে না।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ‌‌‘ডিপার্টমেন্ট অব অব সাইট সুপারভিশন’ থেকে এ-সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

পুঁজিবাজার স্থিতিশীলতায় প্রধানমন্ত্রী ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা এবং পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সুপারিশে ক্যাপিট্যাল মার্কেট এক্সপোজার শিথিল করল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্কুলারে বলা হয়েছে, সরকারসহ বিভিন্ন অংশীজনের মতামত এবং পুঁজিবাজারের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় তালিকাভুক্ত নয় এ রূপ সিকিউরিটিজে ব্যাংকের বিনিয়োগ পুঁজিবাজারে ব্যাংকের মোট বিনিয়োগ হিসাবায়নে অন্তর্ভুক্ত না করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান জাগো নিউজকে বলেন, নন-লিস্টেড কোম্পানির (অ-তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান) যে শেয়ার ব্যাংক ও সাবসিডিয়ারি কোম্পানিগুলোর কাছে রয়েছে; তা শেয়ারবাজারে ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগসীমা (এক্সপোজার) হিসেবে গণ্য হয়। আলোচনায় এসেছে এটি স্টক এক্সচেঞ্জে ট্রেড হয় না। কারণ এটি নন-লিস্টেড। এটি ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগসীমা (এক্সপোজার) থেকে বাদ দেয়ার জন্য বলা হয়। গভর্নর বিষয়টি পজেটিভভাবে বিবেচনা করবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

এর আগে, গত সপ্তাহে গভর্নর ফজলে কবিরের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ ব্যাংকের শেয়ারবাজর সংক্রান্ত এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিএসইসি চেয়ারম্যান ড. এম. খায়রুল হোসেন ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান, আইসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কাজী ছানাউল হকসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় পুঁজিবাজারে তারল্য সংকট কাটাতে বিএসইসির পক্ষ থেকে ক্যাপিট্যাল মার্কেট এক্সপোজার গণনায় নন-লিস্টেড ফান্ডে বা কোম্পানিতে বিনিয়োগ এক্সপোজারের বাইরে রাখার দাবি জানানো হয়।

সভা শেষে ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান বলেন, ব্যাংকগুলোর কাছে নন-লিস্টেড অনেক কোম্পানির শেয়ার আছে, এ কারণে নতুন করে বাজারে বিনিয়োগ করতে পারছে না। এটি শিথিল হলে বিনিয়োগসীমা বাড়বে। অর্থাৎ শেয়ারবাজারে ব্যাংকগুলো বিনিয়োগ বাড়াতে পারবে। এরই ধারাবাহিকতায় আজকে ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপোজার শিথিল করল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here