সুপারশপে সাঁড়াশি অভিযান : কমলো পেঁয়াজের দাম

0
11

রমজান মাস এলেই নিত্যপণ্যের দাম বাড়ানোর প্রতিযোগিতায় নামে কিছু মুনাফালোভী ব্যবসায়ী। এই কাতারে সামিল হয়েছে দেশের চেইন সুপারশপগুলোও। সরকারের নির্দেশনা না মেনে অধিক দামে বিক্রি করছে পণ্য। পকেট কাটছে সাধারণ ক্রেতার। তাই পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে সুপারশপে সাঁড়াশি অভিযানে নেমেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। সতর্ক করার পাশাপাশি ভোক্তা ঠকানোর অভিযোগে করা হচ্ছে জরিমানা।

অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক (উপসচিব) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে বলেন, গত এক সপ্তাহে আগোরা, মীনা বাজার, স্বপ্ন, প্রিন্স বাজার, ক্যারি ফ্যামিলি, নন্দনসহ রাজধানীর চেইন সুপারশপগুলো তদারকি করেছি। বেশিরভাগ সুপারশপে অধিক মূল্যে পেঁয়াজসহ কৃষিপণ্য বিক্রি করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, রাজধানীর বাজারে কৃষিপণ্যের মূল্য নির্ধারণ করে দেয় কৃষি বিপণন অধিদফতর। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ ৫ মে নির্ধারণ করা দাম অনুযায়ী পেঁয়াজের খুচরা মূল্য ২৪ থেকে ৩০ টাকা। কিন্তু সুপারশপগুলো প্রাইম নাম দিয়ে ৩৬ থেকে ৩৭ টাকায় বিক্রি করছে। অর্থাৎ সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে ৬ থেকে ৭ টাকা বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করছে। আইন অনুযায়ী সুপারশপগুলো ভোক্তাদের ঠকাচ্ছে। তাই ভোক্তা অধিদফতরের পক্ষ থেকে পেঁয়াজের মূল্য নির্ধারিত দামে নামিয়ে আনতে ৭ মে (মঙ্গলবার) পর্যন্ত মৌখিকভাবে সময় দেয়া হয়।

সুপারশপগুলো পেঁয়াজের দাম কমিয়েছে কি না দেখতে বুধবার (৮ মে) ধানমন্ডি ২৭ নম্বরে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় কৃষিবিপণন অধিদফতরের নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে দেশি পেঁয়াজের দাম বেশি লেখা থাকায় অর্থাৎ ৩৫ টাকা থাকায় (যা থাকার কথা ৩০ টাকা) নন্দন সুপারশপকে ২০ হাজার টাকা ও স্বপ্নকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তবে মীনা বাজার ও আগোরায় ৩০ টাকায় পেঁয়াজ বিক্রি করতে দেখা গেছে। অর্থাৎ অভিযানে পেঁয়াজ কেজি কমেছে ৭ টাকা।

তিনি আরও বলেন, অধিদফতরের পক্ষ থেকে পেঁয়াজ ৩০ টাকায় বিক্রির জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যদি না করে তাহলে আগামীতে বড় অংকের জরিমানা করা হবে। একই সঙ্গে ঢাকা শহরে কোনো চেইনশপের আউটলেটে দেশি পেঁয়াজ ৩০ টাকার বেশি নেয়া হলে ভোক্তা অধিদফতরে জানাতে বলা হয়েছে। অধিদফতর থেকে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here