প্রস্তুতি ম্যাচে শোচনীয় পরাজয় টাইগারদের

0
34

একদিকে ক্লন্টার্কে শুরু হয়েছিল ত্রিদেশীয় সিরিজ। অন্য দিকে ডাবলিনেরই মালাহাইডে প্রস্তুতি ম্যাচে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড উলভসের মুখোমুখি হয়েছিল সফরকারী বাংলাদেশ। একই শহরে একই দিনে মাঠে নামতে হয়েছে আয়ারল্যান্ডের দুটি দলকে। নিঃসন্দেহে আন্তর্জাতিক ম্যাচে আয়ারল্যান্ড জাতীয় দল এবং সেই ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ১৯৬ রানের বিশাল ব্যবধানেই হারতে হয়েছে আইরিশদের।

অন্যদিকে মালাহাইডে যে দলটি খেলতে নেমেছে, সেটা আয়ারল্যান্ড উলভস নামে সেদেশেরই মূলতঃ এ দল। এই ম্যাচে কিন্তু তারা সদর্পে হারিয়েছে বাংলাদেশকে। বলা যায় আইরিশ উলভসদের হাতে শোচনীয় পরাজয় ঘটেছে টাইগারদের।

স্বাগতিকদের করা ৩০৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২১৯ রানেই অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। শুধুমাত্র সাকিব আল হাসান আর মাহমুদউল্লাহর ব্যাটই কিছুটা কথা বলতে পেরেছে আইরিশ ‘এ’ দলের বোলারদের বিপক্ষে।

৩০৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে তামিম ইকবাল আর লিটন দাস মিলে ৫৬ রানের ভালো একটি জুটি গড়েন। কিন্তু এ সময় এসে ব্যক্তিগত ২১ রানের মাথায় গেটকাটের বলে বোল্ড হয়ে যান তামিম ইকবাল। দলকে সেই ৫৬ রানে বসিয়ে রেখেই পিটার চেজের বলে উইকেটের পেছনে নেইল রকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান লিন দাসও। এ সময় তার রান ছিল ২৬।

তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে সাকিব আল হাসান দারুণ ধৈয্য এবং আস্থার পরিচয় দেন। ৪৩ বল খেলে সাকিব আল হাসান আউট হন ৫৪ রান করে। তিনিই সর্বোচ্চ সংগ্রাহক। ৭টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কা মারেন ১টি। মুশফিকুর রহীম আউট হয়ে যান কেবল ১১ রান করে।

পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নামেন মোহাম্মদ মিঠুন। ১৪ বলে তিনি ১৩ রান করে আউট হন। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ কিছুটা দৃঢ়তার পরিচয় দেন ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে। ৪৮ বল খেলে তিনি করেন ৩৭ রান। সাব্বির রহমান শুধু আসলেন আর গেলেন। ২ বল খেলে কোনো রান না নিয়েই আউট হয়ে গেলেন তিনি। মেহেদী হাসান মিরাজ ৬ বলে করেন ৬ রান।

সাইফউদ্দিনকে ব্যাট করতে নামানো হয়নি। ব্যাট হাতে উইকেটে পাঠানো হয়েছে ফরহাদ রেজাকে। ১৭ বল খেলে তিনি করেন ১৫ রান। তাসকিন আহমেদ খেলেন ২২ বল, রান করেছেন ১৪টি। রুবেল থেকে যান ২ রানে অপরাজিত।

পুরো ৫০ ওভারও খেলতে পারেনি বাংলাদেশে দলের ব্যাটসম্যানরা। ২১৯ রানে অলআউট হয়েছে ৪২.৪ ওভারে। আইরিশ স্পিনার সিমি সিং ভোগান বেশি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের। ৯ ওভারে ৫১ রান দিলেও নিয়েছেন ৪ উইকেট। মিডিয়াম পেসার টাইরন কেন নেন ৯ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে ২ উইকেট।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে জেমস ম্যাককলামের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ৩০৭ রান করে আয়ারল্যান্ড উলভস। ১০৯ বলে ১০২ রান করেন তিনি। ৯৫ বলে ৯১ রান করেন সিমি সিং।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here